সম্মানের জয় পেয়ে এবারের বিশ্বকাপ যাত্রা শেষ করল পাকিস্তান।

দুবেলা, পঙ্কজ দাসঃ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পৌঁছানোর জন্য পাকিস্তানকে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অসাধ্য সাধন করতে হতো।

ওই অসাধ্যসাধন করতে খুব বেশি তাড়াতাড়ি খেলতে গিয়ে এমনকি বাংলাদেশের কাছে পরাজিত হয়ে যেতে পারতো পাকিস্তান। কারণ বাংলাদেশ এবারের বিশ্বকাপের দুর্দান্ত দল। সেখানে বাস্তবে ফিরে এলো পাকিস্তান এবং খুবই সুজ,বুঝ দেখিয়ে মোটামুটি একটি বড় জয় ছিনিয়ে আনল বাংলাদেশের বিরুদ্ধে। বাংলাদেশকে 94 রানে পরাজিত করে বিশ্বকাপের যাত্রা শেষ করল সরফরাজ বাহিনী।

প্রথমে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নয় অধিনায়ক সরফরাজ। শুরুতে ফাকার জামান আউট হয়ে গেলেও খেলার হাল ধরে বাবর আজম এবং ইমামুল হক। ইমাম উল হক ব্যক্তিগত 100 বলে 100 রান এবং বাবর আজম 98 বলে 96 রান করে পাকিস্তানকে একটি বড় রানের লক্ষ্যমাত্রা পৌঁছে দেয়। শেষের দিকে ইমাদ ওয়াসিম মাত্র 26 বলে 43 রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে 300 রান পার করে পাকিস্তানের। নির্ধারিত 50 ওভারে 9 উইকেট হারিয়ে 315 রান করে সরফরাজ বাহিনী। বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে মুস্তাফিজুর সর্বোচ্চ 5টি উইকেট এবং সাইফুদ্দিন 3টি উইকেট নেয়।

বোলিং করতে নেমে পাকিস্তানের দ্রুতগামী বোলার শাহীন আফ্রীদির তার দুর্দান্ত বোলিং এর দাপটে বাংলাদেশি ব্যাটিং অর্ডারর কোমর ভেঙে দেয়। শাহীন আফ্রীদি ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ 6 উইকেট নিয়ে দেখিয়ে দিল যে তার দলে জায়গা হাসান আলীর আগে হওয়া উচিত ছিল। রান তাড়া করতে নেমে 44.1 ওভারে মাত্র 221 রানের মধ্যেই সব উইকেট হারায় বাংলাদেশ। আবারো সেই শাকিব উল হাসান (77 বল 64 রান) তার অর্ধশত রান সম্পন্ন করে। শাকিব ছাড়া কোনো ব্যাটসম্যানই অর্ধশত রান এ পৌঁছাতে পারেনি।

কিছু কিছু ভুল সিদ্ধান্তের কারণে শেষ কিছু ম্যাচ জয় দিয়ে শেষ করলেও বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হলো পাকিস্তানকে। কিছু কিছু ভুল সিদ্ধান্তের কারণে শেষ কিছু ম্যাচ জয় দিয়ে শেষ করলেও বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হলো পাকিস্তানকে। কিছু ভুল খেলোয়াড় কে খেলানো কিছু ভুল দলীয় সিদ্ধান্ত আর খারাপ ফিল্ডিং এর দরুন এবারের বিশ্বকাপে পুরোপুরিভাবে ছিটকে গেল পাকিস্তান।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Related posts

Leave a Comment