বড় পর্দায় ঝুলন গোস্বামীর জীবনী, অভিনয়ে অনুস্কা!

দুবেলা, নিশান মজুমদারঃ চাকদহ থেকে লোকাল ট্রেনে চেপে তিনি আসতেন কলকাতায়। প্র্যাকটিস করতেন সারাদিন। তার পর আবার লোকাল ট্রেনে চেপে ফিরতেন চাকদহে।

এটাই ছিল তাঁর রোজনামচা। তবে কেরিয়ার-এর স্ট্রাগল পিরিয়ড তাঁর জন্য যেন একটু বেশিই দীর্ঘ ছিল। কারণ, ভারতীয় দলের ক্রিকেটার হওয়ার পরও ঝুলন গোস্বামীকে চাকদহ থেকে যাতায়াত করতে হত লোকাল ট্রেনেই। জসপ্রিত বুমরা, ইশান্ত শর্মা, ভুবনেশ্বর কুমারদের মতো ভারতীয় দলের তারকা পেসাররা লোকাল ট্রেনে যাতায়াত করলে হইচই পড়ে যেত হয়তো। কিন্তু ঝুলন গোস্বামীর ক্ষেত্রে তেমন হইচই হয়নি কেন!

মেয়েদের ক্রিকেটে তিনি আইকন তথা বাংলার গর্ব। দীর্ঘদেহী পেসার, আগ্রাসী মনোভাব, আক্রমণাত্মক শরীরী ভাষা। ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটে অ্যাটাকিং পেসার বলতে তিনিই। সেই ঝুলন গোস্বামীর বায়োপিক আসতে চলেছে বড় পর্দায়। বছর দুয়েক আগেই যদিও এই বায়োপিক হওয়ার কথা প্রথম ঘোষণা করা হয়।

পরিচালক সুশান্ত ঘোষ ঘোষণা করেছিলেন ঝুলনের বায়োপিকের ব্যাপারে, তবে এখন তিনি সরে দাঁড়িয়েছেন। সুশান্ত ঘোষ প্রথমে বাণী কাপুরকে ঝুলনের চরিত্রে ভেবেছিলেন। শোনা যাচ্ছিল, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গেও নাকি কথা হয়েছিল। তবে শেষমেষ ঝুলনের ভূমিকায় দেখা যাবে অনুষ্কা শর্মাকে।
আজ থেকে ইডেনে শুটিং শুরু করবেন অনুষ্কা। ইডেনের ড্রেসিংরুমেও শুটিং হবে, ফ্লাডলাইটেও শুটিং করবেন অনুষ্কা। মধ্যরাত পর্যন্ত চলবে শুটিং। ইডেনে শুটিং পর্ব সেরে মুম্বই ফিরে যাবেন বিরাটের স্ত্রী।

অনুষ্কাকে সহায়তা করতে থাকবেন ঝুলন স্বয়ং। পরে ঝুলনেরও মুম্বই যাওয়ার কথা, তবে বায়োপিক নিয়ে এখনই কোনও কথা বলতে নারাজ ঝুলন। জানা গিয়েছে, ঝুলনের হাঁটাচলা, মাঠে তাঁর শরীরী ভাষা, হাব-ভাব রপ্ত করার জন্য গত কয়েক মাস ধরে প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছিল। তবে ছবি মুক্তির কোন সময় জানা যায়নি।

Spread the love

Related posts

Comment here