আপনি কি খাবার নষ্ট করেন, জানেন কি ২০৩০ সালে কি হতে চলেছে!

দুবেলাঃ যতদিন যাবে ততই খাবারের জন্য হাহাকার বারবে। এমনটা হতে আর বেশি দেরি নেই। এমনটাই এক সার্ভেতে ধরা পড়েছে এই চাঞ্চল্য কর তথ্য। রাষ্ট্রসংঘের একটি সংস্থা এই তথ্য সামনে এনেছে। তাদের দাবি ২০৩০ নাগাদ এই সমস্যার সম্মুখীন হবে গোটা বিশ্ব। তাই সমস্যা মেটাতেই আমাদের সকলকে এই বিষয়ে সচেতন হতে হবে। এই সমস্যা মেটানোর পথে যে তিনটি কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হবে বিশ্ববাসীকে। সে গুলি হল আমাদের নিজেদের মধ্যে যে দ্বন্দ্ব রয়েছে তা মেটাতে হবে। দিনের পর দিন যেভাবে আবহাওয়ার পরিবর্তন হচ্ছে এবং অর্থনৈতিক মন্দার মতো ঘটনাও এই সমস্যা মেটানোর পথে…

‘উনিশে বিজেপি ফিনিশ’, পাল্টা সভায় হুঙ্কার অভিষেকের

দুবেলাঃ সুরটা বাঁধা ছিল অনেক আগে থেকেই৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর তোলা সবকটি অভিযোগের জবাব দেওয়া হবে৷ তাই তো সিন্ডিকেট, আগামীতে রাজ্যে বিজেপির সম্ভাবনা এসব নিয়ে সূরাটা ছিল অনেক উঁচুতেই৷ 16 জুলাই মেদিনীপুরের কলেজ মাঠে ভাষাণ দিয়েছিলেন মোদী৷ সেখানেই এদিন তৃণমূল যুব কংগ্রেসর সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হুঙ্কার, ‘উনিশে বিজেপি ফিনিশ’৷ সেদিন প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেছিলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে শুধু সিন্ডিকেট হয়’৷ জবাব দেওয়ার সমাবেশে সেই সিন্ডিকেট প্রশ্নে কন্ঠস্ব তুঙ্গে ছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, শুভেন্দু অধিকারীদের৷ এ প্রসঙ্গে বিজেপির প্রতি অভিষেকের হুঙ্কার, ‘আমরা সিন্ডিকেট করি৷ আমাদের সিন্ডিকেট জঙ্গলমহলে শান্তি এনেছে৷ বিমল গুরুঙ্গ-বিজেপির হাত থেকে পাহাড়ে শান্তি…

শাহ-দর্শন রহস্য

দুবেলা, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপাতি যাঁদের বাড়িতে গেলেন তাঁরাই কি না পরদিন এসে তৃণমুলে যোগ দিলেন! অনেকটা নকশালবাড়ির পুনরাবৃত্তি পুরুলিয়ায়৷ বিজেপির অস্বস্তি বাড়িয়ে মদন মিত্র যখন শিশুবালা রাজোযাড়, সঞ্জয় রাজোযাড়দের হাতে দলীয় পতাকা ধরাচ্ছেন, তখন এই ঘটনাকে নিছকই চক্রান্ত বলে মনে করছে বিজেপি৷ যেখানে সাংবাদিক সম্মেলন করে ঘোষণা করা হল দুটি পরিবার অমিত শাহের আগমনে ত্রস্ত হয়ে তৃণমূলের আশ্রয়ে আসতে চেয়েছে, সেখানে বিজেপির স্পষ্ট বস্তব্য শাহ কাউকেই বিজেপিতে যোগ দিতে বলেননি৷ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের প্রশ্ন, তৃণমূলের এত ভয় কেন? যদিও পুরুলিার দুই পরিবারকে পাশে নিয়ে তৃণমূল নেতা মদন মিত্রের…

কবে শেষ বই পড়েছেন? যদি শরীর সুস্থ রাখতে চান বই পড়ুন

দুবেলাঃ কবে শেষ বই পড়েছেন মনে আছে! যদি এই অভ্যাস নেই তাহলে তাড়াতাড়ি বই পড়া শুরু করুন। কারণ, বই পড়লে জ্ঞান-বুদ্ধি বাড়বে সে বিষয় তো কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু আপনাদের কি জানা আছে শরীর সুস্থ রাখতেও এই অভ্যাস দারুণ ভাবে সাহায্য করে থাকে। তাই তো নিয়মিত ঘন্টা খানেক করে বই পড়ুন। আর এমনটাইর পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকেরা। যে কারণে বই পড়লে তার সুফল শরীরের ওপরও পড়ে। এই যেমন ধরুন, 1. মানসিক শান্তির সন্ধান মেলে 2. বিশ্লেষণ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে 3. স্ট্রেস কমতে শুরু করে 4. মনোযোগ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে 5.…

আপনার খাবারে পোকা? কোন খাবার?

দুবেলা: সারা জীবনে কত জীবাণু আর পোকা খেয়েছেন তার কোনও ঠিক আছে নাকি? আর তার করণ হল ফুড কালার এমনটাই বলছে বিবিসি-র একটি রিপোর্ট। সফট ড্রিংক, কাপকেক, জেলি- এসবে থাকে এই বিষাক্ত ফুড কালার। যার মধ্যে রয়েছে ‘কার্মাইন’ নামে একটি জিনিস, যা নাকি তৈরি হয় কিছু পোকা থেকে। পেরুতে রীতিমত চাষ হয় সেই পোকার।

নিয়মিত ডার্ক চকোলেট খেলে কী হয় জানেন?

দুবেলা: চকোলেট খেতে ভালোবাসেন না এমন ব্যক্তি খুব কমই আছেন। ছোটো থেকে বড় সকলেই চকোলেটের জন্য পাগল। কিন্তু, ডার্ক চকোলেট একটু তেতো হলেও এটি আমাদের স্বাস্থ্য থেকে রূপ সবেরই খেয়াল রাখে। নিয়মিত ডার্ক চকোলেট খেলে যেমন ওজন কমে, তেমনই কোলেস্টরল কমাতে সাহায্য করে। এছাড়াও রূপচর্চার ক্ষেত্রেও ডার্ক চকোলেটের নানা গুণাগুণ দেখা যায়। যেমন, ১- নিয়মিত ডার্ক চকোলেট খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়। কারণ, এর মধ্যে আছে পলিফেনলস ও ফ্লাভিনয়েড, যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। ডার্ক চকোলেটকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়ার হাউজ় বলা হয়। ২- ডার্ক চকোলেট ত্বককে সুন্দর এবং কোমল করে…

ডিম খেলে কতটা উপকার হয় জানা আছে?

দুবেলাঃ আপনার শরীরকে চাঙ্গা করতে চান, তাহলে প্রতিদিন সকালে খালি পেটে ১-২ টো করে ডিম খান। কারন ডিম খেলে শরীরের কতটা উপকার হয় জানা আছে? সম্প্রতি একটি বিখ্যাত জার্নালে জানা গেছে সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে একটা বা দুটো ডিম খেলে দেহের অন্দরে এমন কিছু পরিবর্তন হতে শুরু করে যে ছোট-বড় সব রোগই দূরে পালাতে শুরু করে। সেই সঙ্গে মেলে আরও অনেক উপকারিতা। যেমন ধরুন 1. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে 2. ব্রেন পাওয়ার বৃদ্ধি পায় 3. স্ট্রেসের প্রকোপ কমে 4. ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ে 5. অ্যানিমিয়ার প্রকোপ কমে 6.…

স্টেট ব্যাঙ্কের অভিনব পরিষেবা, এটিএম ছাড়াও তোলা যাবে টাকা

দুবেলা: কয়েক দিন আগেই দেশ জুড়ে এটিএমে টাকার ঘাটতির খবর প্রকাশ্যে আসে। রাজধানীসহ অন্ধ্র, তেলেঙ্গানা, কর্নাটক ও বিহারে এটিএম ও ব্যাঙ্কে নগদের আকাল দেখা দেয়। সে সময়ে পরিষেবা না পেয়ে নাজেহাল হয়েছেন অনেক গ্রাহকও। সমস্যা মেটাতে এবার পয়েন্ট এব সেলস বা পিওএস মেশিনে তোলা যাবে টাকা। কী এই পরিষেবা? অনেকস্ত বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে এসবিআই-এর পিওএস রয়েছে। ডেবিট কার্ডের সাহায্যে সেখান টাকা তোলার সুবিধে মিলবে। গ্রাহকদের আর ছুটতে হবে না এটিএমে। এমনকি এটিএমে টাকার আকাল পড়লেও ‘কই বাত নেহি’। আর এই পরিষেবার জন্য আলাদা কোনও মাশুল গুনতে হবে না গ্রাহককে। অন্য যে…