মমতার বায়োপিকের মুক্তিতে নিষেধাজ্ঞা  নির্বাচন কমিশনের! 

দুবেলা, সম্পূর্ণা সাহাঃপি.এম নরেন্দ্র মোদির পর নির্বাচন কমিশনের কাঠগড়ায় এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বায়োপিক “বাঘিনী”। “বাঘিনী” ছবির মুক্তি নিয়ে চাঞ্চল্য তৈরি হচ্ছিল অনেক দিন ধরেই, কিন্তু শেষ পর্যন্ত কমিশন তাদের সিদ্ধান্ত জানালেন। আর দেখানো যাবে না “বাঘিনী” ছবির ট্রেলার ।

এই ছবি প্রদর্শনের বিরুদ্ধে আপত্তি জানিয়েছিল বিরোধীরা। তাদের দাবি, ছবিটি আসলে মুখ্যমন্ত্রীর বায়োপিক। লোকসভা ভোট চলাকালীন এই ছবি দেখানো হলে ভোটাররা প্রভাবিত হবেন। তাই ভোট শেষ না-হওয়া পর্যন্ত বাঘিনী-র মুক্তি স্থগিত রাখা হোক।

সে কারনেই কমিশনের নোটিশ অনুযায়ী ইউটিউব, সোশ্যাল মিডিয়া এবং আরও তিনটি ওয়েব সাইটকে অবিলম্বে ছবির ট্রেলার তুলে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কমিশন।

পরিচালক নেহাল দত্ত ট্রেলার রিলিজের পর জানিয়েছিলেন, “বাঘিনী” ছবিটি কোনও বায়োপিক নয়। এটি শুধুমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জীবন থেকে অনুপ্রাণিত একটি ছবি। তিন বছরের অনেক গবেষণার পর এই ছবিটি তৈরি হয়েছে। ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা আগামী ৩রা মে।

তাহলে কি “পি.এম নরেন্দ্র মোদি”-র মতোই “বাঘিনী” ছবির মুক্তি নিয়ে ধোঁয়াসা তৈরি হল? এই প্রসঙ্গে ডেপুটি ইলেকশন কমিশনার সুদীপ জৈনকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “সিনেমাটি এখনও সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পাইনি। আগে ছাড়পত্র পাক, এর পরে বিচার করা হবে ছবিটি মুক্তি পাবে কি পাবে না”।

সুতরাং বিরোধীদের দাবি তখনই পূর্ণ হবে যখন পুরো ছবিটি দেখে দিল্লিতে রিপোর্ট পাঠাতে বলা হবে রাজ্যের সিইও দফতরকে এবং তার পরেই জানা যাবে ছবিটি মুক্তি পাবে কি না।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Related posts

Leave a Comment