২-১ জয় ফ্রান্সের, ফরাসি স্ট্রাইকারের প্রথম গোল

দুবেলা:  ফ্রান্সের যাত্রা শুরু হল অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে জয়ের মধ্যমে। কাজান স্টেডিয়ামে অস্ত্রেলিয়াকে ২-১ গোলে হাড়িয়ে নিজেরদের ঝুলিতে তিন পয়েন্ট আনলেন ফ্রান্স।সেশবার বিশবচ্যাম্পিয়ান হয়েছিল ফ্রান্স সেই ১৯৯৮। প্রথম গোল হয় পেনাল্টির মাধ্যমে। জয়ের জন্য গোলটি করেন ম্যানচেষ্টার ইউনাইটেড তারকা পল পোগব। এছাড়া গোল করেন ফরাসি তারকা গ্রিজম্যান৷
প্রথম দিকের খেলায় ভালো খেলতে পারেননি ফ্রান্স। দিদিয়ে ব্রিগেড বেশ কয়েক্তি সুযোগ নষ্ট করে ।যার ফলে ক্যাঙ্গারু বাহিনী বেশ ক্যেকবার পেনালটি বক্সে ঢুকে যায়।তবে অধিনায়ক হুগো লরিসের গ্লাভস বেশ কয়েকবার বাঁচিয়ে দেয় ফ্রান্সকে।প্রথম ৪৫ মিনিট 0-0 ব্যবধানে খেলা শেষ হয়।
দ্বিতীয়ার্ধে রণক্ষেত্রে চলতে থাকে আক্রমন ও পাল্টা আক্রমন। যার ফলে ৫৩ মিনিটে অজি ডিফেন্ডার জোশ রিডসন নিজেদের পেনাল্টি বক্সের মধ্যে ফাউল করে বসেন গ্রিজম্যানকে। সেই সময় ফাউল না দিয়ে খেলা চালিয়ে যান রেফারি আন্দ্রে কুনাহা । পরে সেখানে স্পষ্ট দেখা যায় অজি ডিফেন্ডারের পা লেগে পরে গিয়েছেন গ্রিজম্যান। পেনাল্টির সিদ্ধান্ত জানান রেফারি।এর পরই ১ গোলে এগিয়ে যায় ফ্রান্স ৫৮ মিনিটের মাথায়। এই গোল ফরাসি স্ট্রাইকারের দেশের হয়ে ২১তম গোল হলেও বিশ্বকাপে তার প্রথম গোল। কিন্তু তার প্রতিপক্ষ এর জন্য ৬২ মিনিটে গোল করেন। অস্ট্রেলিয়ার এই গোলটিও পেনাল্টি থেকে পাওয়া। প্রথমে আন্দ্রে দেরি করলেও এই বার করেননি। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক জেডিনাক গোল করে দলকে স্মতায় ফেরান।
তার পর থেকেই শুরু হয় দুই পক্ষের জোরদার আক্রমন রণনীতি। শেষমেশ ৮০ মিনিটে গোগবা শটে বল গোল পোস্টের ভেতড়ে নিচের দিকে লেগে বেরিয়ে আসে। সেই সময় রেফারি গোলের সিধান্ত জানান। পরে দেখা যায় সেই গোলটি গোল লাইন ক্রশ করে গেছে। এই গোলেই বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে তিন পয়েন্ট নিশ্চিত হয় ফ্রান্সের। ফ্রান্সের পরের ম্যাচ পেরুর বিরুদ্ধে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Related posts

Leave a Comment