দুর্নীতি রুখতে ইন্টারপোলের দ্বারস্থ ICC

দুবেলা, সানি ভগতঃ ক্রিকেটকে কলঙ্কমুক্ত করতে বিশ্বকাপের আগে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিল আইসিসি। দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে ইন্টারপোলের সঙ্গে হাত মেলাল ICC।

সম্প্রতি ফ্রান্সের লিয়ঁতে ICC-র দুর্নীতি বিরোধী শাখার ইউনিট জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল ইন্টারপোলের সদর দপ্তরে এবিষয়ে একটি বৈঠক করেন।

মার্শাল সংবাদ মাধ্যমকে জানান ‘আমরা যে বৈঠক করেছি তা সদর্থক হয়েছে।ক্রিকেটের মাঠে দুর্নীতি রুখতে আমরা মিলেমিশে কাজ করবো। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তদন্তকারী সংস্থার সাথে ভালো সম্পর্ক আইসিসি-র। কিন্তু ইন্টারপোলের সাথে যুক্ত হওয়ার অর্থ হচ্ছে, আমরা ওই সংস্থার ১৯৮ সদস্যের সঙ্গেই কাজ করবো। ‘

দুর্নীতি রুখতে প্লেয়ারদের সচেতন এবং শিক্ষিত করতে চায় আইসিসি। তাই ইন্টারপোলের সাহায্য আশা করছে সংস্থা।

আইসিসি-র সাথে কাজ করতে পেরে খুশি ইন্টারপোল। ইন্টারপোলের ক্রিমিনাল নেটওয়ার্ক ইউনিটের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর খোসে দে গার্সিয়া বলেন,’খেলাধুলো মানুষের সঙ্গে মানুষের যোগাযোগ বাড়াতে সাহায্য করে। কিন্তু, সহজ বিশ্বাসকে পুঁজি করে, প্লেয়ারদের বিপথে চালিত করে অপরাধীরা মুনাফা লোঠার চেষ্টা করে। আমরা একজোট হয়ে এই দুর্নীতি রোখার প্রয়াস করবো।’

গত কয়েক বছরে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে আইসিসি। অতীতে বিশ্বের বেশ কিছু ক্রিকেটারদের নাম জুড়েছে ম্যাচ ফিক্সিং কান্ডের সাথে। দক্ষিণ আফ্রিকার হ্যান্সি ক্রোনিয়ে, হার্সেল গিবস, ভারতের মহম্মদ আজহারউদ্দিন, অজয় জাডেজা, শ্রীধরণ শ্রীসন্থ, পাকিস্তানের সলমন বাট, মহম্মদ আমির, মহম্মদ আসিফের মতো ক্রিকেটারা জড়িয়েছে এই কান্ডে।

কারোর অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় শাস্তি দেওয়া হয়েছে। আবার প্রমাণের অভাবে শান্তি থেকে বেঁচেছেন অনেকেই।

তাই এই ব্যাপারটাকে শক্ত করতে চায় আইসিসি, কোনো ক্রিকেটার দুর্নীতির সাথে যুক্ত থাকলে, তার বিরুদ্ধে প্রমাণ পেতেই ইন্টারপোলের দ্বারস্থ আইসিসি। ইন্টারপোলের সাথে যুক্ত থাকলে অভিযোগ প্রমাণ করতে সুবিধা হবে বলে মনে করছে সংস্থা। ফলেই তড়িঘড়ি করে ইন্টারপোলের সাথে গাঁটছড়া বাঁধলো আইসিসি।

Spread the love
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

Related posts

Leave a Comment