কাশ্মীর নিয়ে ফের মোদীকে কটাক্ষ মমতার!

দুবেলা,সম্পূর্ণা সাহাঃ সবাই যখন কাশ্মীরের কেন্দ্রীয়করণে কেন্দ্র ওরফে মোদী সরকারকে বাহবা দিচ্ছেন গর্ববোধ করছেন, ঠিক তখনই আমাদের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের প্রতি আক্রমনাত্মক হয়ে টুইট করেন।

১৯ অগাস্ট বিশ্ব মানবিকতা দিবসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রকে তোপ করে টুইট করে জানান, ” আজ বিশ্ব মানবিকতা দিবস। কাশ্মীরের মানুষদের অধিকার পুরোপুরি ভাবে লঙ্ঘিত হচ্ছে। আমরা সবাই কাশ্মীরের মানবাধিকার ও শান্তির জন্য প্রার্থনা করি। (প্রথম অংশ)
মানবাধিকার রক্ষা আমার হৃদয়ের অত্যন্ত কাছের বিষয়। ১৯৯৫ সালে মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং লক-আপে মৃত্যুর প্রতিবাদে আমি ২১ দিন রাস্তায় নেমে আন্দোলন করেছি। (দ্বিতীয় অংশ)

জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারার বিলোপ ঘটিয়ে সে রাজ্যকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করে দেওয়ার বিল সংসদে পাশ হওয়ার পরেই তার বিরোধিতা করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। বিলের উপরে ভোটাভুটিতে অংশ না নিয়ে রাজ্যসভা এবং লোকসভা থেকে ওয়াকআউট করেছিল তৃণমূল। ৩৭০ ধারা বিলোপের সিদ্ধান্তে বার বার কাটগোড়ায় দাঁড় করিয়েছেন মোদী সরকারকে।

বিজেপি রাজ্যসভা সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটের বিরোধিতা করে বলেন, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক কী বলতে চাইছেন, সেটা একটু স্পষ্ট করে বললে ভাল হয়। উনি কি কাশ্মীরকে পুরোপুরি ভারতের অঙ্গ হিসেবে দেখতে চান না? যদি না চান, তা হলে স্পষ্ট করে বলে দিন। সবারই বুঝতে সুবিধা হবে যে, তিনি ঠিক কী চাইছেন।”
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বক্তব্যের সঙ্গে হুবহু মিলে যাচ্ছে বলে স্বপন দাশগুপ্ত মনে করছেন। পুলওয়ামা হোক, সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হোক, বালাকোটের এয়ার স্ট্রাইক হোক বা এখন জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের পদক্ষেপ— প্রতিটি ক্ষেত্রেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবস্থান মিলে যাচ্ছে পাকিস্তানের সঙ্গে। মনে করছেন রাজ্য বিজেপির নেতারা।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে জম্মু-কাশ্মীরে।৫ অগাস্ট থেকে গৃহবন্দী কাশ্মীর বাসিরা, সঙ্গে ইন্টারনেট পরিসেবা তো বন্ধই তার সঙ্গে ফোন পর্যন্ত বন্ধ। ঘরের বাইরে বেড়ানোর উপায় নেই, আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করার তো দূর। বেশিরভাগ কাশ্মীর বাসিরা এসব মানসিক চাপে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। তাদের অবস্থা এখন পক্ষাঘাতগ্রস্ত রুগীর মতো।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Related posts

Leave a Comment