সুভাষগ্রামে গলা কেটে খুন লিভ ইন সঙ্গিনীকে, আটক এক

দুবেলা: গত ৫ বছর ধরে সুভাষগ্রামের সুভাষপার্কে ধানমাঠ এলাকায় থাকত সন্ন্যাসী ও মঞ্জু। স্বামী স্ত্রী পরিচয় দিয়ে এলাকায় ঘর ভাড়া নিয়ে তারা লিভ ইন করতেন। আজ সকালে সন্ন্যাসী দাস(৪২) সোনাপুর থানায় গিয়ে বলেন সে তার স্ত্রী মঞ্জু দেবিকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে খুন করেছে। তার পর পুলিশ তাদের ভাড়া বাড়িতে গিয়ে তার কথামত গলা কাটা অবস্থায় তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে।


পুলিশ সূত্রে খবর,  সন্ন্যাসী দাস ভাঙড়ের বাসিন্দা। তার সঙ্গে যাদবপুরের আজাদগড়ের বাসিন্দা ওই যুবতীর ৭ বছরের সম্পর্ক। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে সোনারপুর থানার পুলিশ। তারপর পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। এছাড়া ঘর থেকে একটি ছোট ছুরি উদ্ধার হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, ওই ছুরি দিয়েই মঞ্জুকে খুন করা হয়েছে। সন্ন্যাসী দাসকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জেরায় খুনের কথা সন্ন্যাসী স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এদিন তাকে বারুইপুর আদালতে তোলা হয়।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Related posts

Leave a Comment