আয়ুস্মান খুরানার ৭ বছরের রেকর্ড ভেঙে দিল “ড্রিম গার্ল”!

দুবেলা,সম্পূর্ণা সাহাঃ অনেক আগেই ছবির ট্রেলারেই প্রকাশ পেয়েছিল ছবিটি কতটা দর্শকের মন জয় করতে পারবে। তাছাড়াও ছবির গান গুলি মুক্তি পাওয়ার ২ দিনের মধ্যেই ১ মিলিয়নের কাছাকাছি ভিউ ছিল ইউটিউবে। “ড্রিম গার্ল” ছবিটি মুক্তির ৬ দিনের মাথাতেই ১০০ কোটির পথে ছকা হাঁকাতে শুরু করেছে। শুধু রবিবারই ছবিটির বক্স অফিস কালেকশন ছিল ১৮.১০ কোটি টাকা। প্রথম দিনই ছবিটি রোজগার করেছিল ১০.০৫ কোটি টাকা এবং শনিবার ছবিটি ব্যবসা করেছে ১৬.৪২ কোটি টাকা। মুক্তির তিন দিনের মধ্যেই প্রায় ৪৫ কোটি রোজগার করে ফেলেছে ছবি।

ফিল্ম ক্রিটিক ও ট্রেড অ্যানালিস্ট তরণ আদর্শ বক্স অফিস কালেকশন নিয়ে ট্যুইট করে লিখেছেন, ” আয়ুষ্মান খুরানার এখনও পর্যন্ত কেরিয়ারের সব ছবির ওপেনিং রোজগারকে পিছনে ফেলে প্রথমদিনই দশ কোটি বক্স অফিস রোজগার করল ড্রিম গার্ল। ”

ছোটবেলা থেকেই করম অর্থাৎ “আয়ুষ্মান খুরানা” মেয়েদের গলা নকল করতে পারে। সে কারণে অনেক সময় বন্ধুর মা সেজে স্কুলে ফোন করে ছুটি ম্যানেজ করত করম। বড় হওয়ার পর করম পাড়ার অনুষ্ঠানে সীতা ও রাধার অভিনয় করতে শুরু করে। কিন্তু এতে করম ও তার বাবা জগজিৎ সিং অর্থাৎ “অন্নু কাপুর” সন্তুষ্ট ছিলেন না। বাবা চাইতেন ছেলে একটা ঠিকঠাক কাজ করুক। বেকার করম কাজের খোঁজে ঘুরতে ঘুরতে এসে পড়ে একটা কল সেন্টারে যার মালিক একজন ধাপ্পাবাজ, লোক ঠকিয়ে টাকা রোজগার করা মানুষ, যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন “রাজেশ শর্মা”। ওই কল সেন্টারে রয়েছে একগুচ্ছ মহিলা যারা ফোনে ভালোবাসা ও বন্ধুত্ব করে(বিশেষভাবে বলতে গেলে সেক্স চ্যাট)। ওরকম এক কলসেন্টারে শেষ পর্যন্ত ‘পূজা’ সেজে সেক্স চ্যাটে মন দেয় করম। জীবনের বেশিরভাগ লোককেই তাদের অন্ধকার দিক বলতে উসকে দেয় সে। এটাই তার কাজের ধরন। কিন্তু পরবর্তীকালে পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় যে, গ্রাহকেরা পাগল হয়ে ওঠে পূজাকে বিয়ে করার জন্য। অন্যদিকে করম ভালোবাসে মাহি অর্থাৎ নুসরত বারুচাকে। এইসবের মধ্যেই নিজের গার্লফ্রেন্ড ও বাবার কাছে ধরা পড়ে যায় আসলে পূজা কে। তারপর কি হল সেটা জানতে হলে ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখতে হবে।

অসাধারণ কমেডি টাইমিং গোটা ছবিটা জুড়ে। প্রধান চরিত্রটিকে যেভাবে তৈরি করা হয়েছে সেখানে অনেক মেরিট রয়েছে রাতের কল সেন্টারে কর্মরত মেয়েদের অধিকার নিয়ে কথা বলে সেই চরিত্রটি। একাকীত্ব যে সব লিঙ্গের মানুষেরই একটি সমস্যা, সেটাও করমের সংলাপের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে। একটু হালকা করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বিষয়টিও ছুঁয়ে গিয়েছেন পরিচালক। কিন্তু ছবিটিকে পারিবারিক বানাতে গিয়েই হয়েছে সমস্যা।

অভিনয়ে নজর কেড়েছেন অন্নু কাপুর, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, বিজয় রাজ ও মনজোত সিং। নুসরত nও রাজেশ শর্মাও বেশ ভালো। আয়ুস্মান খুরানার কথা আর বললাম না। এক কথায় বেশ ভালো ছবি এক মিনিটের জন্যেও বোড়িং লাগবে না। এক গতের ছবি দেখতে দেখতে যদি নিজের স্বাদটা বদলাতে চান তাহলে বিনা দ্বিধায় নিজের নিকটবর্তী প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখে আসুন “ড্রিম গার্ল” ছবিটি।

ছবির নাম- “ড্রিম গার্ল”
পরিচালক- রাজ শান্ডিল্য
অভিনয়ে- আয়ুষ্মান খুরানা, অন্নু কাপুর, মনজ্যোত সিং, রাজেশ শর্মা, বিজয় রাজ, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, নুসরত ভারুচা, নিধি বিশত, রাজ ভনশালী।
★★★

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Related posts

Leave a Comment