লকডাউনে হাওড়ায় আটকে আসামের ৩০০জন শ্রমিকদের পাশে CPIML লিবারেশন

দুবেলাঃ গোটা দেশ জুরে এখন লকডাউন এর খাঁচায় বন্দী। এর ফলে এই মুহুর্তে(২৫ মার্চ বিকেল) হাওড়া স্টেশনে আটকে আছে প্রায় ৩০০ জন পরিযায়ী শ্রমিক, তাঁরা আসাম ফিরবেন, অথচ ফিরতে পারছেন না। এঁদের মধ্যে কয়েকজন CPIML লিবারেশন সঙ্গে যোগাযোগ করে।

তারপর হাওড়া জেলা কমিটির পক্ষ থেকে তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর হয়। এই শ্রমিকরা মহারাষ্ট্র থেকে আসাম ফেরার পথে আটকে পড়েন হাওড়া স্টেশনে এসে। প্রথমে প্রসাশনের তরফ থেকে তাঁদের হটিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হলেও চাপের মুখে শেষে আবার তাঁদের স্টেশনে রাখার ব্যবস্থা করা হয়। তাঁদের খবারের ব্যবস্থাও করে প্রশাসন।

CPI-ML লিবারেশনের হাওড়া জেলা কমিটির পক্ষে থেকে স্থানীয় প্রশাসনের সাথে কথা বলে জানায় যে যতদিন না এই শ্রমিকরা আসাম ফিরতে পারছেন ততোদিন তাঁদের থাকা ও খাদ্যের ব্যবস্থা প্রশাসনকে করে দিতে হবে। বিভিন্ন স্তরে কথাবার্তার মাধ্যমে সরকার আপাতত শ্রমিকদের দায়িত্ব নিতে সম্মত হয়েছে। বাসে করে তাঁদের বাংলা-আসাম সীমান্তে পৌঁছে দেবে। সেখান থেকে আসাম সরকার তাদের বাড়ি পৌঁছানোর ব্যবস্থা করে দেবে। প্রথমদিকে এই শ্রমিকরা বিভ্রান্তি, অনিশ্চয়তা এবং আশঙ্কার মধ্যে ছিলেন।

রাজ্য সরকারের সহযোগিতাকে CPI-ML লিবারেশনের হাওড়া জেলা কমিটির পক্ষে থেকে নীলাশিস বসু ধন্যবাদ জানিয়েছেন। লকডাউন মানুষ সফল করতেই চাইছে, কিন্তু দেশের মানুষের বিশেষত শ্রমজীবি মানুষের বেঁচে থাকার উপায়গুলি নিশ্চিত না করতে পারলে বাস্তবে লকডাউন সম্ভব হবে কি? সর্বত্র আমাদের যথাসম্ভব পাশে দাড়াতে হবে এবং সরকারকেও সম্পূর্ণ দায়বদ্ধ রাখার নিরন্তর প্রচেষ্টা চালাতে হবে বলেও তিনি জানান।

Spread the love

Related posts

Comment here