হ্যাট্রিকে শুরু বিশ্বকাপ, ড্রয়েই আশ্বস্ত তিতিকাকা

দুবেলা, দেবনীল সাহা: প্রথম ম্যাচেই জাদু দেখাল ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর পা। স্পেনের বিরুদ্ধে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই একা লড়ে একটা সময় হেরে যাওয়া ম্যাচ শেষ পর্যন্ত ড্র করল পর্তুগাল।গতবারের ইউরো চ্যাম্পিয়ন যে হোমওয়ার্কটা কষেই করেছে তা প্রথম ম্যাচেই খোলসা করে দিলেন কিংবদন্তি সিআরসেভেন।তিতিকাকা কে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে ৩-৩ এ ম্যাচ শেষ করল তারা।তবে ছাপ যে একা রোনাল্ডোই রেখেছেন তা বললে ভুল হবে, স্পেনের কোস্তাও কিছু কম যান না।
ম্যাচের শুরুতেই ন্যাচোর ভুলে পেনাল্টি পায় পর্তুগীজরা।আর তাতেই ১-০ এগিয়ে যায় তারা।এরপর কোস্তা ম্যাজিক।অসাধারণ কন্ট্রোলে ড্রিবল করে তার করা অবিশ্বাস্য প্রথম গোলটিকে এখনই এই বিশ্বকাপের সেরা পাঁচ গোলের অন্যতম ধরা হচ্ছে।বিরতি পর্যন্ত স্কোরলাইন এমনই থাকলেও দ্বিতীয় ভাগের শুরুতেই ফ্রি-কিকের পাসে কোস্তার দ্বিতীয় গোল এবং প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ওভারল্যাপে এসে দুরন্ত ভলিতে ন্যাচোর গোলে এগিয়ে যায় স্পেন।
এরপরে রোনাল্ডোর করা দ্বিতীয় গোলে ভুল অবশ্য ছিল স্প্যানিশ গোলকিপার ডি খেয়ার।তবে শেষ মুহূর্তে ফ্রি-কিক থেকে করা অবিশ্বাস্য গোলে সমস্ত হিসেবটাই পাল্টে দেন সিআরসেভেন।কেরিয়ারের ৫১ তম হ্যাট্রিকের মাধ্যমে দেশকে সাক্ষাৎ হারের মুখ থেকে বাঁচান।
স্প্যানিশ দল এদিন খুব যে খারাপ খেলেছে তা নয়।ডিফেন্স, মাঝমাঠ, অ্যাটাক সব কিছুই ছিল জমাটি।তবে সমস্ত ফোকাস কেড়ে নিল একটা মানুষ।তিনি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।তবে এবারও যে তাকে একাই দলকে জেতাতে হবে সেটা স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে।

Spread the love

Related posts

Comment here